নিয়মিত যত্ন নিলেই দাঁত থাকে সুন্দর, সেইসঙ্গে হাসিও থাকে প্রাণবন্ত। শুধু কি সুন্দর হাসি? দাঁত ভালো রাখার প্রয়োজন আরও বিভিন্ন কারণে। একবার দাঁতে ব্যথা দেখা দিলে তা আপনাকে নাজেহাল করে দিয়ে যাবে। অনেকের দাঁত ক্ষয়ে যাওয়ার সমস্যা থাকে। এর সমাধানে নিতে হবে যত্ন।

তাই দাঁতের যত্নে সচেতন হোন আজ থেকেই। চলুন জেনে নেওয়া যাক দাঁতের ক্ষয় রোধে করণীয়-

ভেষজ পেস্ট

সাধারণত দাঁত ব্রাশ করার জন্য আমরা পেস্টকে তেমন গুরুত্ব দেই না। যেকোনো ধরনের পেস্ট হলেই কাজ চালিয়ে নেই। কিন্তু দাঁতের ক্ষয় রোধের জন্য খেয়াল রাখতে হবে পেস্টের দিকেও। চেষ্টা করুন ভেষজ পেস্ট ব্যবহার করার। এতে ভালো থাকবে দাঁত। পাশাপাশি মান সম্পর্কে নিশ্চিত না হয়েই যেকোনো পেস্ট ব্যবহার করবেন না।

ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার

যেসব উপাদান দাঁত ভালো রাখতে সাহায্য করে তার মধ্যে একটি হলো ক্যালসিয়াম। নিয়মিত ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার খান। এতে দাঁত শক্ত ও মজবুত হবে। দাঁতের ক্ষয় রোধ করা সম্ভব হবে। খাবারের তালিকায় যোগ করুন দুধ, দই ইত্যাদি।

লবণ-পানির ব্যবহার

দাঁত ভালো রাখতে সাহায্য করতে পারে লবণ-পানির ব্যবহার। নিয়মিত লবণ পানিতে গার্গল করলে দাঁতের ক্ষয় অনেকটাই রোধ করা যায়। এছাড়াও এর রয়েছে আরও অনেক উপকারিতা। পানি হালকা গরম করে নিয়ে তাতে লবণ মিশিয়ে গার্গল করে নিতে পারেন।

দিনে দুইবার দাঁত ব্রাশ করুন

অনেকে শুধু সকালে দাঁত ব্রাশ করেন। তবে শুধু সকালে নয়, রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে দাঁত ব্রাশ করা জরুরি। নয়তো সারারাত মুখের ভেতরে জীবাণুদের উৎসব চলতে পারে! প্রতিদিন তাই সকাল ও রাতে দাঁত ব্রাশ করার অভ্যাস করুন।

ক্ষতিকর খাবার এড়িয়ে চলুন

দাঁত ভালো রাখতে কিছু খাবার বাদ দিতে হবে। অতিরিক্ত মিষ্টি খাবার, কোমল পানীয়, চকোলেট, লজেন্স, ফাস্টফুড যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলুন। এতে দাঁত ক্ষয়ে যাওয়ার সমস্যা কমবে অনেকটাই। এর বদলে এমন খাবার খান যেগুলো দাঁত ও শরীরের জন্য উপকারী।

মাউথ ফ্রেশনার ব্যবহার

অনেকে মুখে দুর্গন্ধের সমস্যা থাকে। এই সমস্যা নিয়ে বিব্রতকর অবস্থায় পড়েন অনেকে। এটি থেকে বাঁচতে নিয়মিত দাঁত ব্রাশ করার পাশাপাশি মাউথ ফ্রেশনার ব্যবহার করুন। এতে মুখের দুর্গন্ধ দূর হওয়ার পাশাপাশি দাঁতও থাকবে সুরক্ষিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published.